Entertainment News

১০ বছর আগে শাহরুখকেও সমস্যায় ফেলেছিলেন আরিয়ানকে গ্রেফতার করা পুলিশ কর্তা

শাহরুখকেও সমস্যায় – গত ২ অক্টোবর মাদক পার্টি থেকে শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানকে আটক করেছিলেন নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) চৌকস কর্মকর্তা সামির ওয়াংখেড়ের। জানা যায়, মধ্য তিরিশের সামির ছদ্মবেশ নিয়ে মুম্বাই থেকে গোয়াগামী সেই প্রমোদতরিতে ওঠেন। এরপর সেখান থেকেই আটক করা হয় শাহরুখপুত্র আরিয়ানকে। শুধু আরিয়ানই নয়, অতীতে সামিরের জন্য সমস্যায় পড়েছিলেন শাহরুখ স্বয়ং! সে এক দশক আগের কথা।

বিদেশে পরিবারের সঙ্গে ছুটি কাটিয়ে দেশে ফিরছিলেন শাহরুখ। কিন্তু বিমানবন্দরে পা রাখতেই ঘটে বিপত্তি। বলিউডের ‘কিং’-কে আটকে দিয়েছিলেন শুল্ক বিভাগের কর্মকর্তারা। সামির তখন এ বিভাগের ডেপুটি কালেক্টর। সে সময় শাহরুখকে আটকে রেখে দীর্ঘ সময় জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জানা যায়, হল্যান্ড এবং লন্ডন থেকে অতিরিক্ত কেনাকাটা করে ফেলেছিলেন শাহরুখ এবং তার পরিবার। ২০টি ব্যাগ বোঝাই করে জিনিসপত্র নিয়ে এসেছিলেন তারা। নিয়ম না মানার অভিযোগে দেড় লাখ টাকা জরিমানা দিতে হয়েছিল শাহরুখকে। তবে বিষয়টি তখনই চুকে গিয়েছিল বলে মনে করলেও আবারও শাহরুখ ও সামিরের নাম খবরের শিরোনামে এলো আরিয়ানকাণ্ডে।

সম্প্রতি, আরিয়ান গ্রেফতারের পর সামির জানিয়েছিলেন, শাহরুখ খান তাদের টার্গেট নন। তারা এ ঘটনায় ইতোমধ্যে ৩শ’র বেশি ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছেন। জানা যায়, শাহরুখের ছেলেকে নারকোটিক ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্সেস’ (এনডিপিএস)-আইনের আওতায় গ্রেফতার করা হয়েছে। পরোয়ানায় লেখা রয়েছে, ৩০ গ্রাম কোকেন, ২১ গ্রাম চরস, ২২টি এমডিএমএ বড়ি ও নগদ ১,৩৩,০০০ টাকা উদ্ধার হয়েছে মুম্বাই থেকে গোয়াগামী প্রমোদতরির টার্মিনালে।

এনসিবি সূত্রে খবর, শাহরুখপুত্রের সরঞ্জাম থেকেও মাদক উদ্ধার হয়েছে। তার লেন্স রাখার বাক্সে নেশাদ্রব্য পাওয়া গেছে। সেই পার্টিতে জামাকাপড়ের সেলাই, মেয়েদের ব্যাগের হাতলের মধ্যেও লুকিয়ে রাখা হয়েছিল মাদক। আটকের আগে আরিয়ান চরস খেয়েছিলেন। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

পাঠকের মতামত:
Back to top button